Business is booming.

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নতুন ও পুরাতন রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ড বিতরণকে কেন্দ্র করে আহত হয়েছেন ১২ এপিবিএন সদস্য

0

রোববার (০১ আগস্ট) দুপরে টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে এপিবিএন সদস্যদের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও অস্ত্র ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালানো হয়। এ ঘটনায় এপিবিএনের অন্তত ১২ সদস্য আহত হয়েছেন।
এপিবিএনের ১৬ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক এসপি তারিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পে নতুন এবং পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে রেশন কার্ড সংগ্রহ নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয়। এ সময় বিভিন্ন স্থানে রোহিঙ্গা নারী জড়ো হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এপিবিএন সদস্যরা সর্বোচ্চ ধৈর্য্য সহকারে উশৃঙ্খল রোহিঙ্গা নারীদের শান্ত করার চেষ্টা করে। রোহিঙ্গা নারীরা এতে শান্ত না হয়ে দফায় দফায় বিভিন্ন স্পটে ইট-পাটকেল মেরে ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে।
তিনি জানান, এক পর্যায়ে রোহিঙ্গা নারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে অতর্কিতে পুলিশের ওপর ইট পাটকেল মেরে ধস্তাধস্তি শুরু করে। পুলিশের অস্ত্র টানা হেঁচড়া শুরু করলে পুলিশ জান মাল রক্ষায় ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য ৫ রাউন্ড উপরের দিকে শট গানের গুলি ছোড়ে। এতে রোহিঙ্গা নারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায়। ইট পাটকেলের আঘাতে এপিবিএনের ১২ জন সদস্য আহত হয়। আহতদের চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।
এসপি তারিকুল ইসলাম জানান, রেশন কাজ নিয়ে নয়াপাড়া রেজিস্টার্ড ক্যাম্পের পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজমান রয়েছে। পুরাতন রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ড নতুন রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ডের পরিমাণে ভিন্নতা রয়েছে। সব রোহিঙ্গাদের মাঝে সমপরিমাণ খাবার বিতরণের জন্য পুরাতন রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ড ফেরত নিয়ে গত মাসে নতুন রেশন কার্ড ইস্যু করা হয়।

তিনি আরও জানান, নতুন রেশন কার্ড অন্যান্য ক্যাম্পের সম সাময়িক নতুন রোহিঙ্গাদের কার্ডের অনুরূপ হওয়ায় নয়াপাড়া রেজিস্টার্ড ক্যাম্পের পুরাতন রোহিঙ্গারা নতুন কার্ড এখনও গ্রহণ করেনি। এ নিয়েই মূলত উত্তেজনার সূত্রপাত।

Leave A Reply

Your email address will not be published.