Business is booming.

প্রথমবারের মতো একটি শুকরের কিডনি মানব শরীরে সফলভাবে প্রতিস্থাপন

0

গবেষকরা কয়েকদশক ধরে পশুর কিডনি মানব শরীরে প্রতিস্থাপন নিয়ে কাজ করছেন। কিন্তু মানব শরীরে বারবার তা প্রত্যাখান হচ্ছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির এনওয়াইইউ ল্যাঙ্গোন হেলথে করা এই পদ্ধতিতে শুকরটির জিন পরিবর্তন করা হয়েছিল। যাতে এটির টিস্যুতে কোনো মলিকিউল না থাকে।

গবেষকরা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, শুকরটির কিডনি একজন মৃত ব্যক্তির মধ্যে প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল। ওই ব্যক্তি যখন লাইফ সাপোর্টে ছিলেন তখন তার পরিবার এই অস্ত্রোপচারের অনুমতি দিয়েছিল। তার কিডনি অকার্যকর হয়ে পড়েছিল।

তিনদিন ধরে নতুন কিডনিটি তার রক্তনালীগুলির সাথে সংযুক্ত ছিল এবং সেটি তার শরীরের বাইরে সংযুক্ত করা হয়েছিল। যাতে গবেষকদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে সুবিধা হয়।

এই গবেষণার প্রধান সার্জন ড. রবার্ট মন্টগোমারি বলেন, কিডনি প্রতিস্থাপনের ফলাফল ‘বেশ স্বাভাবিক’ দেখা গেছে।

কিডনি থেকে যে পরিমাণ মূত্র আশা করা হয়েছিল তা পাওয়া গেছে। এছাড়া রোগীর প্রতিরোধ ক্ষমতাও তাৎক্ষণিকভাবে নতুন কিডনিটি প্রত্যাখ্যান করেনি।

মন্টগোমারি বলেন, প্রতিস্থাপনের পর দুর্বল কিডনি স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসে।

যুক্তরাষ্ট্রে বর্তমানে প্রায় এক লাখ সাত হাজার মানুষ অঙ্গ প্রতিস্থাপনের অপেক্ষায় রয়েছে। এরমধ্যে ৯০ হাজারই কিডনি প্রতিস্থাপনের অপেক্ষায় রয়েছেন।

ইউনাইটেড নেটওয়ার্ক ফর অরগান শেয়ারিংয়ের তথ্য বলছে একটি কিডনি পেতে বর্তমানে গড়ে তিন থেকে পাঁচ বছর লাগে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.