Business is booming.

রপ্তানিযোগ্য পোশাক চুরি: ১০ চোর গ্রেপ্তার

0

বাইরে থেকে কার্টন ঠিকঠাক, সিলগালা করা কর্ভাড ভ্যানও। কিন্তু কার্টন থেকে রপ্তানির শার্ট-প্যান্ট সরিয়ে নেওয়া হয় কৌশলে। যে কর্ভাড ভ্যানে করে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে এসব রপ্তানি পণ্য পাঠানো হয় সেই গাড়ির চালক-সহকারীই যুক্ত এই চুরির সাথে।

এরকম একটি চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেপ্তারের পর পুলিশ বলছে, আগেও এই উপায়ে রপ্তানিপণ্য চুরি করেছে দলটি। চক্রে আরও সদস্য থাকতে পারে বলে ধারণা পুলিশের।

চক্রটির সদস্যদের গ্রেপ্তারের পর ঢাকার ডেমরা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে চুরি করা ছয় হাজারের বেশি শার্ট-প্যান্ট, যার মূল্য প্রায় এক কোটি ২৩ লাখ ৫৪ হাজার টাকা।

গ্রেপ্তাররা হলেন- কর্ভাড ভ্যানের চালক মো. সুমন (৩১) ও তাজুল ইসলাম হাসান (২২), চালকের সহকারী মো. ইউসুফ (৩৫), রুবেল হোসেন (২০), মো. সুমন (১৯) ও বোরহান (২৬), নুর নবী সোহাগ (৪০), মাসুদ (৩০), মাহবুবুর রহমান শাওন (৩২) এবং সাইফুল ইসলাম রিপন (২৩)।

অভিযানে অংশ নেওয়া ইপিজেড থানার ওসি মীর মো. ‍নূরুল হুদা  বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১৮ ফেব্রুয়ারি সিইপিজেড এলাকার একটি বেসরকারি ডিপোর সামনে একটি কর্ভাড ভ্যান আটক করা হয়।

“কর্ভাড ভ্যানটির তালায় সিল লাগানো, ভিতরে কার্টন সব ঠিকঠাকই ছিল। কিন্তু তথ্য থাকায় আমরা চালক সুমন ও সহকারী ইউসুফকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করি। পরে তারা স্বীকার করে, কার্টন ঠিক থাকলেও ভেতরে রপ্তানি পণ্য ঠিক নেই।”

এরপর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার সাভারের নবীনগর থেকে পার্ল গার্মেন্টস কোম্পানি লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে আসা একই রপ্তানি চালানের অন্য দুটি কভার্ড ভ্যান থেকে পণ্য চুরির তথ্যও জানান সুমন ও ইউসুফ।

এই তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ সিইপিজেড এলাকার কিউএনএস কন্টেইনার ডিপোর সাথে যোগাযোগ করে।

ওসি মীর মো. নূরুল হুদা বলেন, ডিপো কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা যাচাই করে জানায় যে ওই গার্মেন্ট থেকে দুটি কভার্ড ভ্যানে রপ্তানি পণ্য আগে এসেছিল, যাতে মালামাল কম আছে।

“তিনটি কার্ভাড ভ্যানের পণ্য যাচাই করে মোট ৪৬৫৭ শার্ট এবং ১৫২০ প্যান্ট কম পাওয়া যায়।”

এরপর পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই দুটি কর্ভাড ভ্যানের একটির চালক তাজুল ইসলাম হাসান ও সহকারী রুবেল হোসেন এবং অন্য কর্ভাড ভ্যানের চালকের দুই সহকারী সুমন ও বোরহানকে আটক করে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.